নড়াইল জেলা প্রতিনিধি।

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার চরদিঘলিয়া গ্রামের কৃষক ওলিয়ার রহমান মোল্যা (৬০) হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) লোহাগড়ার লুটিয়া বাজার এলাকায় এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এ সময় চরদিঘলিয়া, লুটিয়া, মাউলি, খালচর, গাজীপুর ও চরমাউলি এলাকার বিভিন্ন পেশার মানুষ ওলিয়ার মোল্যা হত্যার বিচার দাবি করেন।

চরমাউলি গ্রামের আত্তাব শেখের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন-নিহত ওলিয়ার রহমান মোল্যার ছেলে আতিকুর মোল্যা, এলাকাবাসীর পক্ষে শেখ সেলিম, হাবিবুর রহমান মোল্যা, সারজন আহমেদ, মিলু মোল্যা, হবিবুর রহমানসহ অনেকে।

বক্তারা বলেন, পূর্বশত্রুতা ও জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত ১৩ জানুয়ারি সকাল ৯টার দিকে বাড়ির পাশে ধানের জমিতে কাজ করার সময় ধারালো অন্ত্র, রড, হাতুড়িসহ বিভিন্ন দেশি অস্ত্র দিয়ে ওলিয়ার মোল্যাকে হত্যা করা হয়। লুটিয়া গ্রামের ফিরোজ শেখ, রোকন মোল্যা, উকিল মোল্যা, রবিউল মোল্যা, আক্তার মোল্যা, রিয়াদ মোল্যা, হৃদয় শেখসহ ২৭ থেকে ২৮জন ওলিয়ারকে হত্যা করে। এ সময় ঠেকাতে গেলে মামলার বাদী নিহতের স্ত্রী আসমা বেগমকে রড দিয়ে আঘাত করলে তার বাম হাত ভেঙ্গে যায়।
এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আসমা বেগম বাদী হয়ে গত ১৮ জানুয়ারি লুটিয়া গ্রামের ফিরোজ শেখকে (৫০) প্রধান আসামি করে ২২ জনের নামে লোহাগড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে আরো পাঁচ থেকে ছয়জনকে। এর মধ্যে চারজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তির দাবি করেন এলাকাবাসী।

এদিকে, মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাদী আসমা বেগম ও তার ছেলে আতিকুর মোল্যাসহ পরিবারের লোকজনকে নানা ধরণের হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। এ ঘটনায় তারা নিরাপত্তাহীনতায় আছেন।