নড়াইল জেলা প্রতিনিধি।

নড়াইলে খেজুরের রস খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ছয় জন। রোববার (২৮ জানুয়ারি) তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের বাড়ি নড়াইল সদর উপজেলার চরবিলা গ্রামে এবং প্রত্যেকেই পার্শ্ববর্তী শাহাবাদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, রোববার দুপুরে সদর উপজেলা শাহাবাদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর রেজওয়ান মন্ডল (১৫), নাহিদ (১৮), ইমন (১৮), তামিন (১৫) এবং নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফাহিম (১৫) ও মুবিন (১৮) মিলে স্কুলের পাশের একটি খেজুর গাছ থেকে কাচা রস পেড়ে খায়। খাওয়ার পর পরই তারা চোখে ঝাপসা, মাথাঘোরা ও বমিসহ অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। পরে স্কুলের দপ্তরীসহ স্থানীয়রা তাদের হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ভর্তি করে।

অসুস্থ শিক্ষার্থীরা বলেন, গাছ থেকে রস পেড়ে খাই। খাওয়া শেষে যখন স্কুলের দিকে রওনা দিছি স্কুলের কাছের একটা বাড়ি পর্যন্ত আসলে আমি চোখে ঝাপসা দেখছি, মাথা ঘোরাচ্ছে এবং উল্টাপাল্টা বলতে থাকি। পরে ওখান থেকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এখন একটু সুস্থ।

এ বিষয়ে নড়াইল সদর হাসপাতালের ইমার্জেন্সি মেডিকেল অফিসার ডা. রেজওয়ানুল হক বলেন, অসুস্থ ছয় শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে হাসপাতালে ভর্তি রাখি। এখন তারা সবাই সুস্থ আছেন। আমরা ধারণা করছি খেজুরের রস খেয়ে তাদের পেটে কোন সমস্যা হয়েছে৷ অথবা খেজুরের রসে হয়ত কিছু মেশানো ছিল যা খেয়ে তারা অসুস্থ হয়েছে। আর নিপাহ্ ভাইরাস সাধারণত খাওয়ার সাথে সাথে হয় না৷ দুই থেকে তিনদিন পর উপসর্গগুলো দেখা দেয়। আমরা আপাতত নিপাহ্ ভাইরাসের মত তেমন কিছু মনে করছি না।